উকিল

সত্যি বলব

বন্দিঃ মহান বিচারপতি, কী করতে হবে আমি জানি না। বিচারকঃ কেন, কী হয়েছে? বন্দিঃ এখানে আমি শপথ নিয়েছি সত্যি বলব। কিন্তু আমি যতবারই সত্যি বলার চেষ্টা করছি ততবারই কোন না কোন উকিল বাধা দিচ্ছেন।

মোটর গাড়ির দুর্ঘটনা

মোটর গাড়ির দুর্ঘটনার দরুন ক্ষতিপূরণ দাবিতে মামলা চলছিল। আসামির উকিল ফরিয়াদিকে প্রশ্ন করলেন, দুর্ঘটনার পরে আসামি যখন আপনাকে জিজ্ঞেস করেছিল, আপনি কি আহত হয়েছেন? তখন আপনি বলেছিলেন কি না যে আপনার কোন চোট লাগে নি? বিবাদী বলল, হ্যাঁ, বলেছিলাম। কিন্তু কথাটা বলা হয়েছিল এভাবে – আমার ঘোড়ার গাড়ি মোটরের সঙ্গে ধাক্কা লেগে রাস্তার পাশে উল্টে …

মোটর গাড়ির দুর্ঘটনা Read More »

মৃতশয্যায় শায়িত

মৃতশয্যায় শায়িত এক লোক উকিলকে দিয়ে উইল লেখাচ্ছিলেন। ‘নিম্ন লিখিত লোকগুলো আমার শব বহন করবে;” বলে বেশ কয়েকজনের নাম লেখলেন। উকিল দেখলেন যাদের নাম লেখা হয়েছে তাদের কারো সঙ্গেই তার ভালো সম্পর্ক নেই। তাহলে কেন এদেরকে দিয়েই শব বহন করাতে চান তিনি? কৌতূহল দমন না করতে পেরে প্রশ্নটা করেই ফেললেন উকিল। লোকটি বলল, এরা আমার …

মৃতশয্যায় শায়িত Read More »

রিভলবারের সামনে মেয়েমানুষ

উকিলঃ তা হলে ঐ ভদ্রলোক যখন রিভলবার হাতে আপনার দিকে এগিয়ে আসছিলেন তখন আপনার হাতে কিছুই ছিল না? মক্কেলঃ ছিল, ঐ ভদ্রলোকের স্ত্রীই ছিল আমার হাতে কিন্তু রিভলবারের সামনে মেয়ে-মানুষ আর কী কাজে আসে বলুন।

ডিভোর্স

ভদ্রলোকঃ আমি আপনার কাছে জানতে এসেছি আমার ডিভোর্স করার গ্রাউন্ড আছে কি না। উকিলঃ আপনি কি বিবাহিত? ভদ্রলোকঃ অবশ্যই। উকিলঃ তা হলে গ্রাউন্ড আছে।

গালাগালি

উকিলঃ এই লোকটা কি আপনাকে জঘন্য গালাগালি করেছে? বাদীঃ জি স্যার। আমাকে ও যে-সব গালাগালি করেছে তা ভদ্রলোকের সামনে বলা যাবে না। উকিলঃ ঠিক আছে, আমরা সবাই আদালত কক্ষ থেকে বেরিয়ে যাচ্ছি, আপনি ওই গালাগালি গুলো জজ সাহেবকে শুনিয়ে দিন।

নিগ্রো উকিল

দুই ছেলের মধ্যে কথা হচ্ছে। – আমার বাবার আয়কর উকিলকে দেখেছিস? – না। – দেখতে একদম নিগ্রোর মত। – কেন? – বাহ, আমার বাবার সব টাকাই যে কালো টাকা।

রাতে এসো না কিন্তু

ডাকাত জামিনে মুক্তি পেয়ে উকিলের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছেঃ – স্যার, আপনি আমার অনেক উপকার করলেন। মাঝে মাঝে আপনার কাছে আসব। – তা আসবে, তবে দয়া করে রাতে এসো না কিন্তু!